চলমান কর্মসূচি ও পরিকল্পনা সমূহ

মিফতাহুল উলূম মাদরাসা
(বারঘরিয়া কওমী মাদরাসা)
বারঘরিয়া, চাঁপাইনবাবগঞ্জ। স্থাপিত-২০১০ইং মোবা : ০১৭৫৭-৯৫৮৪৮১

১। ছোটদের আন্তর্জাতিক মান সম্পন্ন হাফেজে কুরআন তৈরী করতে কর্মসূচি :

(ক) আদর্শ মক্তব : দোতলা বিশিষ্ট একটি মানসম্মত ভবন নিমর্ণ করা, যেখানে প্রায় ২০০ ছাত্র মাত্র ৪ মাসে পবিত্র কুরআনুল কারীম দ্রুত তেলাওয়াতে সক্ষম হবে।

(খ) আন্তর্জাতিক মানের নাজেরা বিভাগ : দোতলা বিশিষ্ট একটি আন্তর্জাতিক মানসম্মত ভবন নিমর্ণ করা, যেখানে প্রায় ১৫০ ছাত্র মাত্র ৮ মাসে পবিত্র কুরআনুল কারীম হিফজ্ করার উপযুক্ত হবে।

(গ) আন্তর্জাতিক মানের হিফজ বিভাগ: দোতলা বিশিষ্ট একটি আন্তর্জাতিক মানসম্মত ভবন নিমর্ণ করা, যেখানে প্রায় ১০০ ছাত্র মাত্র ২ বছরে পবিত্র কুরআনুল কারীম হিফজ্ করতে সক্ষম হবে, ইন্শা-আল্লাহ্।

২। দক্ষতা সম্পন্ন আলেম তৈরী করতে যুগপোযোগী কওমী বিভাগ :

(ক) শিক্ষা ভবন: যুগপোযোগী অত্যাধুনিক মানের শিক্ষা ভবন নিমর্ণ করা,যেখানে প্রায় ৫ হাজার শিক্ষর্থী কোলাহল মুক্ত পরিবেশে ক্লাশ করতে পারবে,ইন্শা-আল্লাহ্।

(খ) ছাত্রাবাস:  ডে-নাইট গার্ড নিয়ন্ত্রনাধীন সু-সজ্জিত ছাত্রাবাস নিমার্ন করা, যেখানে প্রায় ৫ হাজার শিক্ষর্থী কোলাহল মুক্ত পরিবেশে অবস্থান করতে পারবে, ইন্শা-আল্লাহ্।

(গ) প্রশাসনিক ভবন : আল্লাহ ভীরু, দক্ষ ও অভিঙ্গ শিক্ষকগণের নিয়ন্ত্রনে থাকবে একটি মানসম্মত ভবন। যেখান থেকে নিয়ন্ত্রন করা হবে মাদরাসা মসজিদের সাবির্ক কর্মকান্ড।

৩। পরিকল্পিত মসজিদ : ওজু, গোসলখানা ও টয়লেট সম্বলিত মসজিদ যেখানে এক সাথে প্রায় ৬ হাজার মুসল্লি সালাত আদায় করতে পারবে। ২৪ ঘন্টা খোলা থাকবে এবং দাওয়াত তাবলীগ ও দ্বীন প্রচার মূলক কাজ পরিচালিত হবে। সামনে থাকবে ঝর্ণা যুক্ত ছোট পার্ক।

৪। আরো কিছু পরিকল্পনা নিম্নরূপ:
(ক) পুকুর:  শিক্ষার্থীদের মাছের চাহিদা যোগান দিতে ১টি পুকুর খনন করা।
(খ) গরু-ছাগল খামার: শিক্ষার্থীদের গোস্তের চাহিদা যোগান দিতে ১টি গরু-ছাগল খামার তৈরী করা।
(গ) সবজি খমার: শিক্ষার্থীদের সবজি চাহিদা যোন দিতে ১টি সবজি খমার তৈরী করা
(ঘ) মাঠ: উপরে ঊল্ল্যেখিত সব কিছুর মাঝে বিশাল আয়োতনের একটি মাঠ রাখা।

হে আমার পরবর্তি কর্ণধার! আমার জীব্দশায় স্বপ্ন বাস্তবায়নে আমি ক্লান্তহীন, তার পরেও আমার অসমাপ্ত কাজ তোদের পূর্নঙ্গতায় পৌছাতে হবে মুসলিমদের সংঙ্গে নিয়ে আল্লাহর সাহয্য নিতে হবে -দেশ,জাতি ও মুসলিম উম্মাহ কে দুনিয়াই শান্তি ও মৃত্যুর পর চিরস্থায়ী জান্নাতের মেহমান বানানোর জন্য।

হে আমার প্রাণ প্রিয় মুসলিম ভাই-বোন! ঊল্লেখিত পরিকল্পনা বাস্তবায়নে প্রায় ৪০০ শতক জমি সহ অনেক কিছু প্রয়োজন, উহা বাস্তবায়নে আপনিও অংশ গ্রহণ করুন।

আপনাদের আন্তরীক সহযোগিতা ও দোয়া কাসনায়- প্রতিষ্ঠাতা মুহতামীম, আত্র মাদরাসা

Comments are closed.